বিবিধ

রং কেন এতো রং! পর্ব-৩

‘রঙ্গের দুনিয়া তরে চাই না
দিবা-নিশি ভাবি যারে
তারে যদি পাই না
রঙ্গের দুনিয়া তরে চাই না…’

চাই আর না চাই…রং দেখা দিবেই এ চোখে, যদি দৃষ্টিশক্তি থাকে।
প্রশ্ন জাগে এখন,

পৃথিবীতে কত রং আছে?

সঠিক উত্তরটি হতে পারে ‘অসীম’!
অসীম রকম আদত অযৌক্তিক উত্তর…কেননা মহাবিশ্বে সবকিছুরই একটা সাংখ্যিক মান থাকা দরকার। সীমাবদ্ধতা মানুষের। গড় পরতা মানুষ ১০ মিলিয়নের মতো রং দেখে থাকে! অথবা বলা যায় অনুধাবন করতে পারে।
তাহলে এ ব্যাপারে কিছু তথ্য নেয়া যাকঃ

এক পলকে আমরা দেখতে পাই-
* ১০০০ লেভেলের আলো-আঁধার,
* ১০০ লেভেলের লাল-সবুজ,
* ১০০ লেভেলের নীল-হলুদ।
এর মানে হচ্ছে আমরা সর্বমোট দেখতে পাই
১০০০১০০১০০=১০,০০০,০০০ বা ১০ মিলিয়ন রং বা রংয়ের তীব্রতা!
আমরা যখন কম্পিউটার ডিসপ্লেতে কোন পূর্ণ রঙ্গিন ছবি তৈরী করি, তখন প্রায় ১৬.৮ মিলিয়ন রংয়ের প্রকরণ ব্যবহার করি। মৌলিক রং লাল, নীল, সবুজ মিলে প্রকৃতির রংয়ের প্রকরণ সৃষ্টি করে। অপরদিকে আঁকাআঁকির জন্য লাল, হলুদ, নীল। গ্রাফিক্স ডিজাইনের হিসেবটা আমরা নতুন কোন পর্বেই জানবো।
কোন রং অবস্থাদৃষ্টে কতটুকু প্রভাবিত করতে পারবে, তা নির্ভর করে রংয়ের উজ্জ্বলতা, আলোর উপস্থিতি এবং যা দেখছি তার মধ্যে অপরাপর রংয়ের উপস্থিতির উপর।

মূলত অবস্থাদৃষ্টে এ দেখা রংয়ের (Variation)
পরিমাণটা অগণিত! তাই কত রং দেখি, তার উত্তরটা সোজাসাপ্টা ‘অসীম’ দিয়ে দিই…..

(….চলবে)

আপনার মতামত লিখুন :

Back to top button
Close